Dhaka, Bangladesh
    বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৯
    ২৩ Rabi' I, ১৪৪১
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৪:৫৭ পূর্বাহ্ণ
    সূর্যোদয়ভোর ৬:১৬ পূর্বাহ্ণ
    যোহরদুপুর ১১:৪৪ পূর্বাহ্ণ
    আছরবিকাল ২:৫০ অপরাহ্ণ
    মাগরিবসন্ধ্যা ৫:১২ অপরাহ্ণ
    এশা রাত ৬:৩০ অপরাহ্ণ
Facebook By Weblizar Powered By Weblizar

মিনহাজ হোসেন ইতালী প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল ইতালী বিএনপি, নাপোলী প্রভিন্সিয়াল শাখার আংশিক কমিটি ঘোষনা।
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) কে আরো শক্তিশালী ও বেগবান করতে ইতালীর বন্দর নগরী নপোলীতে নতুন প্রভিন্সিয়াল কমিটির অনুমোদন করা হয়। ইতালী বিএনপির সভাপতি হাজী আব্দুর রাজ্জাক ও সাধারন সম্পাদক ঢালী নাসির উদ্দিন দলীয় প্যাডে গত ১৬ নভেম্বর ২০১৯ ইং এই কমিটির অনুমোদন করেন। দলের স্বার্থে পূর্বের কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন কমিটিকে জোরালো ভুমিকা রাখার নির্দেশ দেন ইতালী বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।
নাপোলীর, পালমা কাম্পানীয়া, সানজোসেফ ও সানজেন্নারো প্রভিন্সিয়াল এই নতুন কমিটিতে মিজানুর রহমান বাচ্চু- সভাপতি, গোলাম আক্তার লিটন- সিনিয়র সহ সভাপতি, মোঃ মনির হোসেন – সাধারন সম্পাদক, মঞ্জুর হোসেন- যুগ্ম সাধারন সম্পাদক, সানাউল্লাহ সানি- সাংগঠনিক সম্পাদক, মামুন আলম মাহবুব ১নং সদস্য এবং আব্দুল গনিকে প্রধান উপদেষ্টা করে এই আংশিক কমিটি অনুমোদন করা হয়। একই সাথে ৩০ দিনের মধ্যে পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করে ইতালী বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটিতে প্রেরণের জন্য নির্দেশ দেন নেতৃবৃন্দ।
কমিটি অনুমোদনের সময় কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক তৌহিদ কাদের, সাংগঠনিক সম্পাদক – কামরুজ্জামান রতন, সহ সভাপতি- হাসানুজ্জামন কামরুল সহ আরো অনেকে।

মিনহাজ হোসেন ইতালি প্রতিনিধিঃ ৭ নভেম্বর জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে রোম মহানগর বি এন পি, সেন্তসেল্লে শাখা একটি আলোচনা সভার আয়োজন করে।
১৬ নভেম্বর শনিবার সন্ধ্যায় ইতালির রাজধানী রোমের চিকেন হাট এন্ড স্বদেশ বাংলা রেস্টুরেন্টের হলরুমে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন ইতালি বি এন পির সভাপতি হাজী মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, প্রধান বক্তা ছিলেন ইতালি বি এন পির সাধারণ সম্পাদক ঢালী নাসির উদ্দিন।
রোম মহানগর বি এন পি, সেন্তসেল্লে শাখা আয়োজিত এই আলোচনা সভাটির সভাপতিত্ব করেন সভাপতি মজিবর রহমান সিকদার। পরিচালনা করেন যৌথভাবে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম লিটন ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ শামিম।
বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন ইতালি বি এন পির সিনিয়র সহ সভাপতি আমিনুর রহমান সালাম, সহ সভাপতি হাজী নুরে আলম, মায়নুল আলম খোকন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ মোঃ তৌহিদ কাদের, আবুল কালাম সায়মন, আল আমিন বিশ্বাস, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন, সদস্য মিজান মল্লিক, রোম মহানগর বি এন পির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাসার সহ অনেকে।

প্রধান অতিথি ইতালি বি এন পির সভাপতি হাজী আব্দুর রাজ্জাক বলেন” বি এন পি অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি দল। আর তাই এই সরকার বি এন পির জনপ্রিয়তায় ভীত। সে কারণেই মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়া কারাবন্দী। তিনি বলেন প্রতিটি নেতা ও কর্মীদের ধৈর্য ধারণ করতে হবে। সেই সঙ্গে দেশে ও প্রবাসে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন ও সংগ্রামে অংশ গ্রহণ করতে হবে। ১৭ কোটি জনগণকে মুক্ত করতে হবে। তাদের দিতে হবে ভোটের অধিকার।
প্রধান বক্তা ইতালি বি এন পির সাধারণ সম্পাদক ঢালী নাসির উদ্দিন বলেন” সিপাহী ও জনতার স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে বিপ্লবের মধ্যে বি এন পির প্রতিষ্ঠাতা ও বীর উত্তম মুক্তিযোদ্ধা শহিদ প্রেসিডেনট জিয়াউর রহমান বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। আজ সেই গণতন্ত্র কে হত্যা করা হয়েছে। দেশে চলছে গুম, খুন ও হত্যার খেলা, বিরোধী দলকে প্রতিনিয়ত মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। দলের এই ক্রান্তিকালে পদ পদবী কে ভুলে শুধুমাত্র একজন জিয়ার সৈনিক হিসাবে বি এন পির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া কে কারামুক্ত করার লক্ষে কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান।
অন্যান্য বক্তারাও বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবী করেন।

মেহেনাস তাব্বাসুম শেলি রোম প্রতিনিধিঃ গণপ্রজাতন্রী বাংলাদেশ সরকারের যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল ইউরোপ সফরে আসলে গত সোমবার ইতালীর রাজধানী রোম পরিদর্শন করতে আসেন। তার রোমে আসাকে স্বাগত জানিয়ে গত মঙ্গলবার ঢাকা বিভাগ সমিতির উদ্যোগে বাংলা অধ্যুষিত এলাকা তরপিনাত্তারা রসই রেস্টুরেন্টে এক মত বিনিময় ও সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়।

এতে ঢাকা বিভাগ সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ লিটনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ইমরুল কায়েছের প্রাণবন্ত সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্রী বাংলাদেশ সরকারের যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত আবদুস সোবহান সিকদার, প্রথম সচিব সালেহ আহমেদ, ফ্রান্স থেকে আগত বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সামাজিক ব্যাক্তিত মোঃ আতিকুজ্জামান, ইতালী আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী মোঃ ইদ্রিস ফরাজী, সাধারন সম্পাদক হাসান ইকবাল, সহ সভাপতি হাবিব চৌধুরী, মোঃ শাহ আলম, মাইন উদ্দিন লিটন, উপদেষ্টা আইয়ুব খান প্রিন্স, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন, হাদিউল ইসলাম হাদি, আফতাব বেপারী, সুহেব দেওয়ান, আবু তাহের, সাংগঠনিক সম্পাদক দিন মোহাম্মদ, দপ্তর সম্পাদক হাবিব মকদম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক বাবু ঢালী, আইন বিষয়ক সম্পাদক ফারুক খালাশি, সম্মানিত সদস্য মুজিবুর সিকদার, মোঃ জহিরুল ইসলাম, ফারুক ফরাজী, ইতালী মহিলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি উম্মেহানি প্রিন্স, নিলুফা বানু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামিমা আক্তার পপি, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেনাস তাব্বাসুম শেলি, তাহমিনা আক্তার, আক্তার শাহনাজ, প্রচার সম্পাদক শিমু অনন্যা, সদস্য রুপালী গোমেজ, যুবলীগ ইতালী শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি উজ্জ্বল মৃধা, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এনায়েত করিম, সদস্য মহি উদ্দিন, রাশেদ আহমেদ, রোম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ মামুন, সহ সভাপতি রফিক আল মাহমুদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জামিল আহমেদ, দপ্তর সম্পাদক সরোয়ার হোসেন, স্চ্ছোসেবক লীগের অন্যতম নেতা মাসুদ রানা, ইকবাল ঢালী, কাতানিয়া আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি নাবাব সৌজন আওয়ামী লীগ নেতা আবু সাঈদ, যুবনেতা কবির হোসেন, বাংলাদেশ জাতীয় ক্রীড়া সংস্থা ইতালী সাধারন সম্পাদক আব্দুর রশিদ, বৃহত্তর ঢাকা সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জুবায়ের আহমেদ রিপন, সাবেক প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সেলিম আহমেদ, নুরুজ্জামান লাকি, গাজীপুর জেলা সমাজ কল্যাণ সমিতি প্রধান উপদেষ্টা মাহমুদুল হাসান, বৃহত্তর কুমিল্লা সমিতির সাবেক সভাপতি দিদারুল আবেদিন, সাবেক সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, ময়মনসিংহ জেলা সমিতি, চট্টগ্রাম সমিতি সাধারন সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রিকন, বরিশাল বিভাগ সমিতির সাবেক সাধারন সম্পাদক সুজন সিকদার, নরসিংদী জেলা সমিতি, কিশোরগঞ্জ জেলা সমিতি, ঢাকা বিভাগ সমিতির নেতৃবৃন্দদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোঃ জাহিদ, আফজাল হোসেন রোমান, আহসান উল্লাহ, মোঃ রাসেল এছাড়াও রোমের আঞ্চলিক সামাজিক ও রাজনৈতিক শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দরাও উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল তার বক্তব্যে বলেন, ক্রীড়ার মাধ্যমে স্বল্প সময়ে দেশকে বিশ্ব দরবারে পরিচিত করা সম্ভব। বিশ্বের অনেক দেশ অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও সামাজিকভাবে সমৃদ্ধ না হলেও ক্রীড়া ক্ষেত্রে বিশ্বদরবারে স্থান করে নিয়েছে। তিনি ডেনমার্ক প্রবাসী বর্তমান বাংলাদেশের জাতীয় টিমের কেপ্টেন জামাল ভূইয়াকে উল্লেখ করে বলেন সে ডেনমার্ক থেকেও বাংলাদেশকে মাতিয়ে রেখেছে। তাই তিনি ইতালীতেও যদি এরকম খেলা প্রেমি জামাল ভূইয়া পাওয়া যায় তাহলে জাতীয় টিমে খেলার সুযোগ করে দেওয়া যাবে বলে আশ্বাস দেন। বাংলাদেশের যুবকদের জন্য প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় একটি করে ইনডোর স্টেডিয়াম করে দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও বাংলাদেশের কয়েক কোটি বেকার যুবকদের আত্মকর্মসংস্হান প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তৈরি করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতিমধ্যেই পদক্ষেপ নিয়েছেন। ২০১৬ সাল থেকে এ পর্যন্ত বেকারত্বের হার ২৮% এ আছে, প্রধানমন্ত্রীর বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ২০৩০ সালের মধ্যে ৩% এ নিয়ে আসার জন্য দায়িত্ব দেন।

বিশেষ অতিথি রাষ্ট্রদূত আবদুস সোবহান সিকদার বলেন, ক্রীড়াই পারে দেশের যুব সমাজকে মাদক থেকে দূরে রাখতে ও সক্ষম জনশক্তি হিসেবে গড়ে তুলতে। যার মাধ্যমে প্রবাসে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে উঠবে।ক্রীড়ার মাধ্যমে দেশের ক্রীড়াঙ্গন অনেক দূর এগিয়েছে। ক্রীড়ার উন্নয়নের জন্য আরো বেশি জনগণকে সম্পৃক্ত করতে হবে। বর্তমান সরকার ক্রীড়া উন্নয়নের জন্য আন্তরিক ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি সকল যুবকদের মাদকদ্রব্য থেকে দূরে থেকে খেলার প্রতি এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

শেষে ইতালীস্হ বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রধান অতিথি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়। এবং ঢাকা বিভাগ সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ লিটন সমাপনী বক্তব্য এর মাধ্যমে উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।


মেহেনাস তাব্বাসুম শেলি রোম প্রতিনিধিঃ
ফ্রান্সে ১৫ বছরের কম বয়স্ক কোনো শিক্ষার্থী স্কুলে মোবাইল, ট্যাবলেট, স্মার্টওয়াচ ব্যবহার করতে পারবে না। এমনকি দুপুরের আহার বেলায়ও এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর।
চলতি বছরের জুলাই মাসে মোবাইল নিষিদ্ধ করে আইনটি পাশ হয়। পরবর্তীতে তালিকায় যুক্ত হয় ট্যাবলেট ও স্মার্টওয়াচ।
ক্লাস চলাকালীন ফ্রান্সে মোবাইল নিষেধ করা হয় ২০১০ সালে। তবে এবার অন্যান্য সময়ও আইনে যুক্ত হয়েছে। তবে শারীরিকভাবে অক্ষম শিক্ষার্থীদের জন্য আইনে শিথিলতা রয়েছে।
ছেলেমেয়েরা মোবাইলের ওপর বেশি নির্ভরশীল ও সামাজিকতা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছে এমন আশঙ্কাকে কেন্দ্র করে এই আইন জারি করা হয়েছে। এটিকে অভিহিত করা হচ্ছে ‘একুশ’ শতকের আইন হিসেবে।
নতুন আইন অনুসারে শিক্ষার্থীদের তাদের ফোন স্কুলে বন্ধ করে রাখতে হবে নতুবা লকারে জমা করতে হবে।


মেহেনাস তাব্বাসুম শেলির রিপোর্টঃ
বহুল প্রতীক্ষিত বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সভাপতি পদে বীর মুক্তিযোদ্ধা আতাউর রহমান খান এবং সাধারণ সম্পাদক পদে দেওয়ান মাকসুদুল ইসলাম আউয়াল নির্বাচিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) রাত ৭টার দিকে ভোট গণনা শেষে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান বিজয়ী ও বিজিতি প্রার্থীদের ফলাফল ঘোষণা করেন।
উপজেলার ১০ ইউনিয়ন, পৌরসভা, উপজেলা আওয়ামী লীগ ও জেলা আওয়ামী লীগের নির্ধারীত কাউন্সিলরগণ ভোট দেন।
সভাপতি আতাউর রহমান খান ২১২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আব্দুল হাসিব মনিয়া পেয়েছেন ১৬৭ ভোট এবং অপর প্রার্থী নজমুল হোসেন পেয়েছেন ১২ ভোট। দুইটি ভোট বাতিল হয়েছে। ভোট মোট দিয়েছেন ৩৯৩জন ভোটার।
সাধারণ সম্পাদক পদে দেওয়ান মাকসুদুল ইসলাম আউয়াল বিজয়ী হয়েছেন। তিনি ভোট পেয়ে পেয়েছেন ১৫১। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি হারুনুর রশিদ দিপু ১০৩ ভোট পেয়েছেন । অপর তিন প্রার্থী জাকির হোসেন ৭৮, আবুল কাশেম পল্লব ৬০ ও জামাল হোসেন ৫ ভোট পান।
সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে ৮জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। তাঁরা হচ্ছেন- সভাপতি পদে আব্দুল হাসিব মনিয়া, আতাউর রহমান খান ও নজমুল হোসেন এবং সাধারণ সম্পাদক পদে জাকির হোসেন, হারুনুর রশিদ দিপু, দেওয়ান মাকসুদুল ইসলাম আউয়াল, আবুল কাশেম পল্লব এবং জামাল হোসেন। ভোটের আগে নির্বাচন থেকে নাম প্রত্যাহার করে সভাপতি পদে মাহমুদ আলী ও সাধারণ সম্পাদক পদে সেলিম উদ্দিন আহমদ।
বিকাল ৪টা থেকে শহরতলীর ইউসুফ কমিউনিটি সেন্টারে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ১০ ইউনিয়ন, পৌরসভা, উপজেলা ও জেলা আওয়ামী লীগের ৪০৬জন কাউন্সিলর ভোট দেন আগামী নেতা নির্বাচন করতে। ভোট দিয়েছেন ৩৯৩জন কাউন্সিলর।

আবুল হোসেন রিপন,খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি॥

কেক কাটা,বিশেষ মোনাজাত,পতাকা উত্তোলন,প্রীতিভোজ সহ নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে সেনাবাহিনীর লক্ষীছড়ি জোনের দায়িত্বে নিয়োজিত ২৬ ফিল্ড রেজিমেন্ট আর্টিলারি’র ৪০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে।

রবিবার দুপুরে লক্ষীছড়ি জোন সদরে অনুষ্ঠিত প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে জোন অধিনায়ক লে:কর্ণেল জাহাঙ্গির আলম সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন,গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ শাহরিয়ার জামান।

এ সময় আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে,ডিজি এফ আই ডেট কমান্ডার কর্ণেল.নাজিম উদ্দিন,সিন্দুকছড়ি জোন অধিনায়ক লে:কর্ণেল রুবায়েত মাহমুদ হাসিব,মাটিরাংগা জোন অধিনায়ক লে:কর্ণেল নওরোজ নিকোশিয়ার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ সদস্য রেম্রাচাই চৌধুরী, লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান বাবুল চৌধুরী, মানিকছিড় উপজেলা চেয়ারম্যান মো: জয়নাল আবেদিন, লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রাজু চাকমা দিপান্তর, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সুমনা চাকমা, থানার অফিসার্স ইনচার্জ হুমায়ুন কবীরসহ সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

পার্বত্য এলাকায় সেনাবাহিনী সম্প্রীতির মেল বন্ধন তৈরিতে কাজ করে যাচ্ছে মন্তব্য করে প্রধান অতিথি গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ শাহরিয়ার জামান বলেছেন,পার্বত্য এলাকায় কিছু দুষ্ট মানুষ রয়েছে। তাদের নিধনে নিরাপত্তাবাহিনী সহ সকলে সচেতন আছে। পাহাড়েরে উন্নয়ন ও শান্তি চুক্তি বাস্তবায়নে সকলে মিলেমিশে কাজ করতে হবে।

এর আগে আমন্ত্রিত অতিথিগণ অনুষ্ঠানস্থলে পৌছলে তাদেরকে স্বাগত জানান,লক্ষীছড়ি জোন অধিনায়ক লে:কর্ণেল জাহাঙ্গির আলম ।পরে আমন্ত্রিত অতিথিদের সাথে নিয়ে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কেক কাটেন গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ শাহরিয়ার জামান।দিবসটি উপলক্ষে সকালে পতাকা উত্তোলন, বিশেষ মোনাজাত জোনের পক্ষ হতে গরীব, অসহায় দুস্থ্যদের মাঝে অনুদান বিতরণ সহ দুপুরে প্রীতিভোজের আয়োজন করা হয় ।

রিপোর্ট মনিকা ইসলাম

বাংলাদেশের সাথে লাটভিয়ার দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যিক সম্পর্ক মজবুত করার পাশাপাশি বাল্টিক বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স গঠনকল্পে বিশেষ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয় শুক্রবার লাটভিয়ার রাজধানী রিগায়।

স্থানীয় বাংলাদেশ কমিউনিটির উদ্যোগে এবং অল ইউরোপীয়ান বাংলাদেশ এসোসিয়েশন আয়েবার সহযোগিতায় রেডিসন ব্লু হোটেলে অনুষ্ঠিত সভাটি সঞ্চালনা করেন আয়েবা মহাসচিব কাজী এনায়েত উল্লাহ। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন আয়েবা সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার ডঃ জয়নুল আবেদিন , পোল্যান্ডের অনারারি কন্সাল ইঞ্জিনিয়ার ওমর ফারুক, আয়েবা সহ সভাপতি ফখরুল আকম সেলিম , বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন লাটভিয়ার প্রেসিডেন্ট তারেক আহমদ, আয়েবা আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আজহারুল হক ফেরদৌস , বাংলাদেশ কো-অর্ডিনেটর তানভীর সিদ্দিকী প্রমূখ।

স্থানীয় ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের মধ্যে মিহাইলিস , অলগা কারাবলিনা, আররতুস ভেইসপালস,ভেলরি সহ অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন।

এ সময় বক্তারা বলেন ,বাল্টিক বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স গঠন করা হলে বাংলাদেশি বিভিন্ন পণ্য অতি সহজে বাল্টিক দেশ গুলোর বাজারে প্রবেশ করতে পারবে। পাশাপাশি বাংলাদেশেও বাল্টিক দেশ গুলোর বিনিয়োগের পথ প্রশস্ত। হবে।

সভায় লাটভিয়ার ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


মেহেনাস তাব্বাসুম শেলি রোম প্রতিনিধিঃ
ইতালিতে মুসলমানদের ওপর ও মসজিদে ভয়াবহ হামলার পরিকল্পনা নিয়েছিলো দেশটির উগ্রপন্থী ফার রাইট খ্রিস্টানরা। এজন্য তারা মজুদ করেছিলো বিপুল পরিমাণ অস্ত্র, বোমা ও ডেটোনেটর।

মুসলমানরা যখন নামাজে থাকবে তখন পুরো মসজিদ উড়িয়ে দেয়ার পরিকল্পনা ছিলো তাদের। খ্রিস্টানদের এই ভয়াবহ হামলার পরিকল্পনা ফাঁস হয়ে যাওয়াতে ভয়ানক এক বিপদ থেকে রক্ষা পেলো ইতালির মুসলিমরা।

মঙ্গলবার রাত থেকে আজ বুধবার সকাল পর্যন্ত দুই খ্রিস্টান মৌলবাদী সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছে ইতালি পুলিশ। উদ্ধার করেছে বিপুল অস্ত্র, যা দেখে হতভম্ব ইতালির মুসলমানরা। অনেক মুসলমান ইতালির মিডিয়ায় নিউজটি দেখে ফজর নামাজের পর দুই রাকাত নফল নামাজ পড়েছেন।

ইতালি পুলিশ জানিয়েছে, রাজধানী রোম থেকে ১৮৬ কিলোমিটার উত্তরে সিয়ানা এরিয়ায় একযোগে মুসলমানদের গ্রান্ড মসজিদে হামলার পরিকল্পনা করে এসব উগ্রবাদী, মৌলবাদী ফার রাইট খ্রিস্টানরা।

দেশটির পুলিশ সূত্র জানায়, গোপন সংবাদ পেয়ে ইতালির ফ্লোরেন্স ও সিয়ানা এরিয়ার পুলিশের বিশেষ ইউনিট অভিযান চালিয়ে ফার রাইট গ্রুপের দুই খ্রিস্টানকে গ্রেফতার করে। এ ভয়াবহ হামলার পরিকল্পনার সাথে প্রত্যক্ষ জড়িত ১০ জনকে গ্রেফতার করার জন্য বিশেষ অভিযানে নেমেছে ইতালির গোয়েন্দা পুলিশ।

মিনহাজ হোসেন ইউরোপ বুরো প্রধানঃ
কমিউনিটির উন্নয়ন ও ভালো কাজে সহযোগিতার লক্ষ্য নিয়ে ইতালীর ভেনিসে কিশোরগঞ্জ জেলার বিভিন্ন উপজেলার প্রবাসীদের নিয়ে ভেনিসের বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী তাজুল এর উদ্দ্যগে কিশোরগঞ্জ জেলা সমিতি গঠনের উদ্দেশ্য নিয়ে মতবিনিময় সভা ও মুক্ত আলোচনা র আয়োজন করে। আলোচনা সভায় রফিকুল বারী র সভাপতিত্বে ইউনুস মিয়া ও আলমাছ মিয়ার উপস্থাপনা ও পরিচালনায় ভেনিসের মেসএে তে হোটেল আম্বাসাতরে র হল রুমে সংগঠন গঠন নিয়ে মতবিনিময় ও মুক্ত আলোচনায় বক্তব্য রাখেন রহিছ মিয়া , আব্বাছ আলী , সাইফুল ইসলাম , আব্দুর রাজ্জাক , শামসুদ্দিন মিয়া , সুরুজ মোল্লা ( অস্টগ্রাম ) , জয়নাল আবেদীন ইছাক , গিয়াস উদ্দিন ( মিটাবন ) , আব্দুল কুদ্দুছ , আরফান মিয়া ( অস্টগ্রাম) , হাবিবুর রহমান ( কিশোরগঞ্জ সদর ) , রফিকুজ্জামান ঠাকুর , সোহেল ঠাকুর ( ইটনা ) , শেখ আব্দুল মজিদ , আবুল কাশেম , মাহাবুব আলম টিপু ( মিটাবন ) , সিজার ভূইয়া , বিল্লাল মিয়া , মতিউর রহমান , হুমায়ুন কবির ( অস্টগ্রাম ) , আজাহার ( নিকলী ) , রফিকুল ইসলাম ( পাকুন্দিয়া ) , এমদাদুল হক ( বাজিতপুর ) , তাজুল ইসলাম ( কটিয়াদি) , হান্নান ভূইয়া ( তারাইস ) ফখরুল প্রমূখ।

মেহেনাস তাব্বাসুম শেলি রোম প্রতিনিধিঃ
দেশের ঐতিহ্যবাহী সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ইতালী শাখার কাউন্সিল হতে যাচ্ছে রাজধানী রোমে দীর্ঘ ৮বছর পর।

গত বুধবার সন্ধ্যায় রোমের তরপিনাত্তারা রসই রেস্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে কাউন্সিলের তারিখ সহ প্রস্তুতি কমিটির নাম অনুষ্ঠানিকভাব ঘোষণা করা হয়। এতে ইতালী আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক হাসান ইকবালের সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন ইতালী আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী মোঃ ইদ্রিস ফরাজী।

সভাপতি হাজী মোঃ ইদ্রিস ফরাজী জানান গত ২৫ শে অক্টোবর ইতালী আওয়ামী লীগের কার্যাকরী পরিষদের সভায় সকলের সম্মতিক্রমে ইতালী আওয়ামী লীগের কাউন্সিলের দিন ধার্য ও একটি প্রস্তুতি কমিটি নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়। তিনি বলেন আগামী দিনে ইতালী আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ থেকে সুষ্ঠুধারার রাজনীতিতে অটল ভূমিকা পালন করার লক্ষ্যে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে ইতালী আওয়ামী লীগকে আরো শক্তিশালী ও সু-সংগঠিত করতে, আগামী ২৯ শে মার্চ ২০২০ একটি কাউন্সিলের মাধ্যমে ইতালী আওয়ামী লীগের একটি নতুন কমিটি গঠন করা হবে।

গত ২৮ শে অক্টোবর সোমবার ইতালী আওয়ামী লীগের কার্যকারী কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক প্রস্তুতি কমিটি এবং নির্বাচন কমিশনের নাম ঘোষণা করা হয়। এবং গত ৩০ শে অক্টোবর বুধবার সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের প্রস্তুতি কমিটির নাম ঘোষণা করা হয় এতে আহবায়কঃ জি এম কিবরিয়া, সদস্য সচিব আবু সাঈদ খান, সদস্য হাজী মোঃ জসিম উদ্দিন, শাহ আলম, মোঃ লিটন হাজারী, আফতাব বেপারী, মজিবুর সিকদার, প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম লোকমান হোসেন, নির্বাচন কমিশনার হাবিব চৌধুরী, লিটন মোল্লা, জালাল আহমেদ, দিদারুল আবেদীন নির্বাচন করা হয়।

এ সময় সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এন টিভি মনিরুজ্জামান মনির, ৭১টেলিভিশন লাবণ্য চৌধুরী, বাংলা টিভি হুমায়ুন কবির, জি টিভি শাহিন খলিল কাওসার, টিভি ওয়ান মিনহাজ হোসেন, ইউরোবাংলা টেলিভিশন মেহেনাস তাব্বাসুম শেলি, জয়যাত্রা টেলিভিশন নাজমুল হোসেন তুহিন প্রমুখ।

এছাড়াও আওয়ামী লীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইতালী আওয়ামী লীগ, ইতালী মহিলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ইতালী শাখা, সেচ্ছাসেবক লীগ,রোম মহানগর আওয়ামী লীগ, শ্রমিক লীগ, আমরা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ইতালী, রোমা নর্দ আওয়ামী লীগ সহ অনেকেই।

মিনহাজ হোসেন ইউরোপ বূরো প্রধানঃ আসন্ন স্পেন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে ঘিরে এক আলোচনা সভা গত ১১ই নভেম্বর মাদ্রিদের বাংলা টাউন রেস্টুরেন্টে অনুষ্টিত হয়েছে |
স্পেন আওয়ামীলীগের আহ্বায়ক এ এস আর আই রবিন ,সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব রিজভী আলমের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ,

বদরুল ইসলাম ,শ্যামল তালুকদার ,দবির তালুকদার ,এফ এম ফারুক পাভেল ,আজম কাল ,আখতারুজ্জামান আখতার ,কবির হুসেন , |
ফয়জুর রহমান বড় ভাই ,জাহিদুর রহমান দিদার ,জানে আলম ,তাপস দেবনাথ ,আব্দুল আউয়াল ,ময়নুল ইসলাম মনির ,তোতা কাজী ,বেলাল আহমেদ ,বুলবুল আহমেদ ,মোঃ হারুনুর রশিদ , হাসান আহমেদ , অলিউর রহমান , এনাম আলী খান ,স্পেন ছাত্রলীগ নেতা হানিফ মিয়াজী,আল আমিন আহমেদ প্রমুখ |
অনুষ্ঠানে সম্মেলনকে সফল করতে বিভিন্ন উপ-কমিটি গঠন করা যায় |সভাপতির বক্তব্যে রবিন বলেন ,শেখ হাসিনার নেতৃত্বের বিরুদ্ধে ,যারা চ্যালেঞ্জ করে তাঁরা কখনো.. বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কর্মী হতে পারে না |দলে বিশৃংখলা সৃষ্টি করার কোনো সুযোগ নেই সম্মেলন কে ঘিরে প্রতিযোগিতা ও প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকবে এটাই স্বাভাবিক |
তিনি আরো বলেন ,আসন্ন সম্মেলন সকল ভেদাভেদ, ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটিয়ে আসুন. শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা দেশ থেকে বিদেশে ছড়িয়ে দিন |

মিনহাজ হোসেন ইউরোপ বুরো প্রধানঃ
সাবেক ছাত্রলীগ ফোরাম কাতালোনিয়ার উদ্যোগে গত ১০ নভেম্বর রবিবার রাতে বার্সেলোনার প্লাজা পেদ্রো শহিদ মিনার চত্বর সংলগ্ন রেষ্টুরেন্টে মতবিনিময় ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।সংগঠনের সদস্য সচিব ময়নুল
আবেদীনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ,আহবায়ক মিজানুর রহমান।
কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন
আবদুল মুতলিব ।সভায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক সাব্বির আহমেদ দুলাল, সংগঠনের প্রথম সদস্য হীরা আলম,আওয়ামী লীগ নেতা মহিউদ্দিন হারুন, আবু তালেব আল মামুন লাভু, সহজ মোল্লা,বঙ্গবন্ধু পরিষদ সভাপতি শাহ আলম স্বাধীন,আশফাক মিয়া ফাঁকু,যুবলীগ সভাপতি শাহাবুদ্দীন,সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মিজান সানা, মিজানুর রহমান সহ সামাজিক রাজনৈতিক ও সাংবাদিক ব্যক্তিবর্গ।
শিক্ষা শান্তি প্রগতির মোহর অংকিত
ছাত্রলীগের গৌরব উজ্জ্বল ভূমিকার কথা উল্লেখ করে বক্তারা বলেন মহান
স্বাধীনতা ,৯০ এর গন আন্দোলনে স্বৈরাচার সরকারের পতন সহ দেশের
বৃহত্তর সংকটে ছাত্র লীগের ভূমিকা অপরিসীম। ছাত্রলীগ নিজের বলে বলিয়ান ,প্রয়োজনে জীবন উৎসর্গ করার সর্বোৎকৃষ্ট উদাহরণ ছাত্রলীগের।পূর্ব বাংলার সূর্যোদয়ে গঠিত বালাদেশ ছাত্রলীগ দেশ গঠনে অদ্যাবধি নিজের স্বাক্ষর রেখে ছলেচেন,কখনো সেবক কখনো সৈনিক হয়ে সোনার বাংলা গঠনে জন্ম থেকে চলমান তার ভূমিকা প্রশংসনীয়।বক্তারা শুদ্ধি অভিযান সহ দেশ গঠনে জননেত্রী শেখ হাসিনার
দূরদর্শিতার প্রশংসা করেন।
সভার সভাপতি তার সমাপনি বক্তব্যে বলেন ছাত্রলীগ একটি সুশৃঙ্খল সংগঠন, শুধু বাংলাদেশের মাটিতে নয়,বিদেশ মাটিতেও তার সুনাম অক্ষুন্ন রাখিতে সক্ষম তথা ছাত্রলীগ নিজের বলে এগিয়ে ছলে।পরিশেষে উপস্থিত সবাই কে ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

মিনহাজ হোসেন ইউরোপ বুরো প্রধানঃ
ফ্রান্সে কুমিল্লা জেলা সার্বজনীন সমন্বয় কমিঠির সভা অনুষ্টিত হয়েছে | রোববার প্যারিসের ক্যাথসীমার একটি হলে এ সভা অনুষ্টিত হয় | ফ্রান্সে বসবাসরত কুমিল্লা জেলার সকল প্রবাসীদের নিয়ে সার্বজনীন একটি পর্ষদ গঠনের লক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় বিপুল সংখ্যক প্রবাসীরা উপস্থিত ছিলেন।
বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শামসুল হকের সভাপতিত্বে ও সাবেক ছাত্রনেতা জাহাঙ্গীর আলম মিলনের পরিচালনায় এতে উপস্থিত ছিলেন ফ্রান্সস্থ বৃহত্তর কুমিল্লা জেলা সমিতির সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমান শিকদার , সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম সরকার ,অধ্যাপক অপু আলম,সাবেক সহ সভাপতি মোহাম্মদ ইব্রাহিম,ওবায়দুর রহমান,ফারুক মিয়া ,মনছুর আহমদ,বশির উদ্দিন,আক্তার হোসাইন ,তানিম আহমদ,কামাল আহমদ, কামাল আহমদ,কবির হোসাইন,মোশারফ হোসাইন,নুরুল আমিন,বায়জিদ বোস্তামি,রাশেদ খান প্রমুখ।
এ সময় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা থেকে শুরু করে বর্তমান অবধি ঐতিহ্যবাহী কুমিল্লার জনসাধারণের বীরত্বগাথা অপরিসীম। প্রবাসীদের অবদানও চোখে পড়ার মতো। ফ্রান্সে বসবাসরত বিপুল সংখ্যক প্রবাসী সকল দুর্দিনে সুখে দুঃখে অবিরাম চলছেন স্বমহিমায়। তাই একই ছাতার নিচে সবাইকে আবদ্ধ করতে একটি সার্বজনীন পর্ষদ এখন সময়ের দাবি।
সভায় ব্যাপক আলোচনা শেষে নতুন পর্ষদ গঠনের জোরালো প্রস্তাব উত্তাপিত হলে উপস্থিত বয়োজোষ্ঠ নেতৃবৃন্দের আহবানে একসপ্তাহ পিছিয়ে আগামী সপ্তাহে পর্ষদ গঠন করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

ছিন্নমূল বড়ইতলা ২ নং সমাজে তিন বছরের শিশু কন্যা রুমাকে বাড়িতে রেখে অন্যান্য দিনে মত কাঠ ও পানি সংগ্রহ করতে বাইরে যায় তার মা পরভীন আক্তার। পরে সন্ধ্যার দিকে পানি ও কাঠ নিয়ে বাড়িতে ফিরে দেখেন তার মেয়ে খুব কান্নাকাটি করছে। পরে তার মা তাকে জিজ্ঞেস করলে একই এলাকার বাসিন্দা শামীম উল্লাহ শম্ভু তাকে খারাপ কাজ(ধর্ষণ) করেছে বলে জানায়। এর পর তাকে স্থানীয় ফার্মেসী থেকে ঔষধ এনে খাওয়ালেও তার কোনো উন্নতি না দেখে গত ৬ নভেম্বর চমেক হাসপাতালে নিয়ে আসলে ওসিসি ওয়ার্ডে ভর্তি করানো হয়।

বর্তমানে চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। প্রাথমিক পরীক্ষায় মেয়ে ধর্ষণ হয়েছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছে।

এঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে শিশুটির মা পারুল আক্তার গত ১০নভেম্বর রবিবার রাতে সীতাকুণ্ড থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করলে পুলিশ ধর্ষক শামীম উল্লাহ শম্ভুকে উপজেলার জঙ্গল সলিমপুর এলাকার ছিন্নমুল থেকে গ্রেফতার করে কোর্টে প্রেরণ করেন।

সীতাকুণ্ড মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ফিরোজ হোসেন মোল্লা বলেন, এঘটনায় অভিযুক্ত শামীম উল্লাহ শম্ভুকে রোববার রাতে গ্রেফতার করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।


আবুল হোসেন রিপন,
খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি//

অসহায়,ক্ষতিগ্রস্থ, অসুস্থ ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ করেছে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ। বুধবার সকালে খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ হলরুমে এ চেক রিবতণ করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী। এতে উপস্থিত ছিলেন, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা টিটন খীসা, সদস্য শতরূপা চাকমা প্রমূখ।

চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি কংজরী চৌধুরী বলেন, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ সব সময় অসহায়,দুস্থ ও ক্ষতিগ্রস্থ ও শিক্ষার্থীদের সাথে ছিল থাকবে। এ অনুদান আপনাদের প্রয়োজনে চাহিদা অনুসারে কিছুই না। তারপরও আপনাদের পাশে থেকে খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের সাহায্যে হাত সব সময় প্রসারিত ছিল, আগামীতেও থাকবে।

এ সময় তিনি আরো বলেন, পার্বত্য জেলাবাসীর যে কোন সংঙ্কট,অগ্নিকান্ড,দুর্যোগসহ আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করতে এ পরিষদ অজ্ঞিকারাবদ্ধ। বর্তমান সরকার পার্বত্য জেলা পরিষদের মাধ্যমে সাধারন মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নসহ তাদের ভাগ্যন্নোয়নের মাধ্যমে সাবলম্বি করে তুলতে কাজ করে যাচ্ছে বলে তিনি জানান। তাই জেলাবাসীর পাশে পার্বত্য জেলা পরিষদ সুখে-দু:খে পাশে থেকে কাজ করে যাবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
এ অনুষ্ঠানে আর্থিক সাহায্যের জন্য আবেদনকারী খাগড়াছড়ি জেলা মোট ৬০ জনের হাতে প্রধান অতিথি অনুদানের চেক তুলে দেন। আর্থিক সহায়তার জন্য জরুরী চিকিৎসা,দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ,অসহায় দুস্থ ও শিক্ষার্থীদের মাঝে মোট ১০ লক্ষ ৫ হাজার টাকা আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ করা হয়।

২০২০ সালের এস.এস.সি পরীক্ষায় অংশ নিতে ফেনীর রামপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ফরম পূরণে চলছে অতিরিক ফি আদায় ।অভিভাবকদের অভিযোগ, নির্ধারিত বোর্ড ফি’র চেয়ে অতিরিক্ত টাকা আদায় করছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।কয়েকজন অভিবাবক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, রামপুর বালিকা বিদ্যালয়ে এস.এস.সি ফরম পূরণ বাবদ প্রতি পরীক্ষার্থী থেকে প্রায় ৬ হাজার টাকা করে নিচ্ছে। টাকা আদায়ের কোন রশিদ দেয়া হচ্ছে না। এমনকি অতিরিক্ত টাকা আদায়ের কথা কাউকে বললে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে দেয়া হবে না বলে ছাত্রীদের সতর্ক করে দেয়া হয়।বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জহির উদ্দিন ইমতিয়াজ এ বিষয়ে কথা না বলতে শিক্ষার্থীদের ভয় দেখান তাতে শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা ক্ষুব্ধ।২০২০সালের এসএসসি পরীক্ষায় শিক্ষা বোর্ডের নির্ধারিত ফি বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে এসএসসির ফরমপূরণ বাবদ সর্বোচ্চ ১ হাজার ৯৭০ টাকা, ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের পরীক্ষার্থীদের থেকে সর্বোচ্চ ১ হাজার ৮৫০ টাকা এবং মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে সর্বোচ্চ ১ হাজার ৮৫০ টাকা ফি নিতে প্রতিষ্ঠানগুলোকে বলেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড গুলো।এছাড়া অনিয়মিত শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে পরীক্ষার্থী প্রতি ১০০ টাকা অনিয়মিত ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। এছাড়া জিপিএ উন্নয়ন পরীক্ষার্থীদের তালিকাভুক্তি ফি ১০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।কিন্তু বোর্ডের নির্দেশনা রামপুর বালিকা বিদ্যালয়ে মানা হচ্ছে না। তবে স্কুলের শিক্ষকরা বলছেন, কোচিং সেবা দেয়ার জন্য শিক্ষকদের জন্য কিছু টাকা ধরে ফি বাড়ানো হয়েছে।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন অভিভাবক জানান, “তার বোন ফরম পূরণে বোর্ডের নির্ধারিত ফি এর চেয়ে ৪১৫০ টাকা অতিরিক্ত ফি জমা দিতে হয়েছে।সব মিলিয়ে প্রায় ৬০০০ টাকা নেয়া হয়েছে।” পরীক্ষায় ক্ষতি হতে পারে এমন আশংকায় কোন অভিভাবক এর প্রতিবাদ করেনি। স্কুল কর্তৃপক্ষ পরিকল্পিত ভাবে এ অর্থ বাণিজ্য করেছেন। এমনকি পরীক্ষার্থীদের নিকট হতে ফরম পূরণের আদায়কৃত অর্থের কোন রসিদও দেওয়া হয়নি। এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বলেন,পরীক্ষার্থীর কাছ থেকে বাড়তি অর্থ নেওয়ার কথা অস্বীকার করলেও পরে বলেন, স্কুলের উন্নয়নের জন্য অর্থ নেয়া হয়েছে।

মেহেনাস তাব্বাসুম শেলি রোম প্রতিনিধিঃ “রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার উন্নয়ন বিস্ময় বিশ্বায়ন”এই শ্লোগানকে সামনে রেখে জনগণের ক্ষমতায়নকে সুদৃঢ় করার প্রত্যয় নিয়ে জাঁকজমক পূর্ণভাবে যুবলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করলো বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ ইতালী শাখা। গত ১১ই নভেম্বর সোমবার সন্ধ্যায় ইতালী রাজধানী রোমে ফ্লেভার্স অব ইন্ডিয়া রেস্টুরেন্ট সংগঠনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও কেক কর্তন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এতে যুবলীগ ইতালী শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি উজ্জ্বল মৃধার সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এনায়েত করিমের প্রাণবন্ত সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইতালী আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী মোঃ ইদ্রিস ফরাজী ও প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইতালী আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক হাসান ইকবাল। এছাড়াও ইতালী যুবলীগ সহ ইতালী আওয়ামী লীগ, ইতালী মহিলা আওয়ামী লীগ, স্চ্ছোসেবক লীগ, রোম মহানগর আওয়ামী লীগ, শ্রমিক লীগ ইতালী শাখা, তুসকোলানা আওয়ামী লীগ সহ আওয়ামী সংগঠনের বিভিন্ন শাখার নেতা কর্মীদের উপস্থিতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া সভায় যুবলীগের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস ও মুক্তিযোদ্ধ পরবর্তী সময়ের যুদ্ধ বিধ্বস্ত বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ে তোলার প্রচেষ্টায় যুবলীগের ভূমিকার কথা উল্লেখ করে সভায় উপস্থিত ইতালী আওয়ামীলীগ ও যুবলীগ নেতৃবৃন্দেরা পক্ষে বক্তব্য রাখেন। তারা বলেন, দীর্ঘ ৪৭ বছরের পথ পরিক্রমায় বাংলাদেশ যুবলীগ পাড়ি দিয়েছে অনেক ঘাত প্রতিঘাত। অর্জন করেছে মানুষের ভালবাসা ও বিশ্বাস। এই ধারা অব্যাহত রাখতে আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগকে আরো এগিয়ে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করে দেশের সার্বিক উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রাখতে হবে।

সমাপনি বক্তব্যতে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি উজ্জ্বল মৃধা বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনার নিদের্শনায় ‘দেশ ও মানুষের উন্নয়ন’ পূরণের লক্ষ্যে যুবলীগ ইতালী শাখার নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।

আলোচনা সভা শেষে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কর্তন করে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ একে অন্যকে মিষ্টিমুখ করান।

মেহেনাস তাব্বাসুম শেলি রোম প্রতিনিধিঃ
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান , বীর মুক্তিযোদ্ধা অবিভক্ত ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়ে শোক সভা , মিলাদ মাহফিল ও দোয়া করেছে ইতালীর ভেনিসে বসবাসরত ঢাকা বিভাগের জাতীয়তাবাদী দলের সমর্থক বৃন্দ। গতকাল শনিবার রাত ৮ টায় ভেনিসের মেসএে তে বিসমিল্লাহ রেস্টুরেন্ট এ আয়োজিত শোক সভায় কামরুজ্জামান বাবুর সভাপতিত্বে ও শফিকুল হাসান এর পরিচালনায় শোক সভায় বক্তব্য রাখেন আব্দুল হাকিম , জাহাঙ্গীর আলম , মুক্তার হোসেন , আব্দুল হালিম প্রমূখ। শোক সভায় কামরুজ্জামান বাবু বলেন, মুন্সীগন্জের কৃতি সন্তান সফল সাবেক মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকা র মৃত্যু তে আমরা শোকাহত । বিএনপি ও দেশের সাধারণ মানুষ একজন দেশ প্রেমিক যোদ্ধাকে হারালো। বাংলাদেশ কে স্বাধীন করতে গিয়ে নিজের জীবন বাজি রেখে দেশকে স্বাধীন করা এ বীর যোদ্ধা নিজ কর্মে বেচে থাকবে বাংলাদেশের মানুষের মাঝে । শোক সভা শেষে মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া কামনা ও তবারক বিতরন করা হয়।

মিনহাজ হোসেন ইতালি প্রতিনিধিঃ ইতালির রাজধানী রোমে বাংলাদেশ দূতাবাসের স্থায়ী ভবনে পাসপোর্টের হাল নাগাদ বিভিন্ন তথ্য ও সেই সঙ্গে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রনালায় থেকে প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য যে সুযোগ ও সুবিধা গুলো দিয়েছে সে বিষয় গুলো নিয়ে একটি প্রেস কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়।
গত ৭ নভেম্বর বৃহস্পতিবার দূতাবাসের কনফারেন্স রুমে কাউন্সিলর সিকদার মোঃআশরাফুর রহমান ও এরফানুল হক এবং প্রথম সচিব শেখ সালেহ আহমেদ সাংবাদিকদের সামনে এই তথ্য গুলো তুলে ধরেন।

১০হাজারের অধিক পাসপোর্ট জটিলতা রয়েছে এমন অপপ্রচারের জবাবে প্রথম সচিব সালেহ আহমেদ ২০১৪ সাল থেকে ২০১৯ সালের ৭ নভেম্বর পর্যন্ত সর্বশেষ তথ্য প্রদান করেন তিনি জানান” ২০১৪ সাল থেকে ডিজিটাল পাসপোর্ট আবেদন গ্রহণ শুরু তখন ৪শত ১৭ টি পাসপোর্ট জমা পড়ে এবং দূতাবাস প্রদান করে ৪শ ১৭ টি, ২০১৫ সালে জমা পড়ে ২৫ হাজার ৭শ ৫৪টি, প্রদান করা হয় ২৫ হাছার ৬শ ৩৭টি, ২০১৬ তে জমা পড়ে ১৬ হাজার ৯ শ ০৮টি এদিকে প্রদান হয় ১৬ হাজার ৯শ ৯৮ টি, ২০১৭ সালে ১০ হাজার ৯শ ৮৬ টি পড়ে জমা আর প্রদান করে দূতাবাস ১০ হাজার ৫শ ৪০টি পাসপোর্ট, ২০১৮ সালে ১০ হাজার ৭ শ ৮৬ টা জমা পড়লে প্রদান করা হয় ৭ হাজার ৯শ ৬৭ টি, এদিকে সর্বশেষ ২০১৯ এর অক্টোবর পর্যন্ত জমা পড়ে ৮ হাজার ৫শ ৮৭টি আর দূতাবাস প্রদান করে ১১ হাজার ৪শ ৫৬ টি।
এদিকে তথ্য পরিবর্তনের কারণে পাসপোর্ট পেইন্ডিং রয়েছে ৭শ ৮২ টি এবং পুলিশ পুলিশ ভেরিফিকেশনের কারণে পেইন্ডিং আছে ৯ শ ২০টি। সব মিলিয়ে ১৭০২ টি পাসপোর্ট আটকে রয়েছে বাংলাদেশ পাসপোর্ট অধিদপ্তরে। এভাবে তথ্য গোপন করে পাসপোর্ট আবেদন না করার ও আহবান জানান।

কাউন্সিলর এরফানুল হক বলেন” বাংলাদেশ দূতাবাস ১ জুলাই ২০১৮ থেকে ৩০ জুন ২০১৯ পর্যন্ত এই অর্থ বছরে যারা সবোর্চচ ১০ হাজার ইউরো পর্যন্ত বৈধ পথে রেমিটেন্স প্রেরণকারীদের পুরস্কার প্রদান করা হবে। এখানে উৎসাহ প্রদানের জন্য পুরুষ থাকবে তিনজন ও নারী থাকবে দুইজন। এক্ষত্রে ৩০ নভেম্বর আবেদন গ্রহনের শেষ তারিখ বলে জানান তিনি।
তিনি আরো বলেন” বাংলাদেশ সরকার রেমিটেন্স পাঠানোর ক্ষেত্রে শতকরা ২% প্রণোদনা কার্যকরী হয়েছে এবং যে ব্যাংক গুলো এখনো করেনি সেগুলো ও এই শুরু করবে। পাশাপাশি ওয়েজ অর্নাস কল্যাণ বোর্ডের নিবন্ধন করলে সন্তানদের লেখাপড়া সংক্রান্ত সহযোগিতা, প্রবাসী ঋণ ও প্রবাসী লাশ বহনের খরচ সহ বিভিন্ন সুবিধা গুলোর কথা জানান।”
এদিকে দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচির বিষয়ে কাউন্সিলর সিকদার মোঃআশরাফুর রহমান বলেন” রাষ্ট্রদূত শুধু রোমেই নয় বিভিন্ন প্রভিন্স গুলোতে কনস্যুলেট সার্ভিসে নিজে যান। সমস্যা গুলো সমাধানের চেষ্টা করেন। সেদিক থেকে যে কোন বিষয়ের উপর কথা বা দেখা করতে যে কেউ ই তার কাছে আসতে পারেন, কথা বলতে পারেন। সেখানে এই ধরনের কর্মসূচিতে বিদেশীদের কাছে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করাই হবে মূল উদ্দেশ্য অন্য কিছু নয়।”
প্রেস কনফারেন্সে অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেস ক্লাব ও বাংলা প্রেস ক্লাব ইটালীর সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

মেহেনাস তাব্বাসুম শেলি রোম প্রতিনিধিঃ
ইতালির প্রথম বাংলাদেশী মানিকানাধীন মানি ট্রান্সফার প্রতিষ্ঠান ‘ন্যাশনাল এক্সচেঞ্জ কোম্পানী’র আয়োজনে বৈধ্য পথে দেশে রেমিটেন্স প্রেরণে প্রবাসীদর উৎসাহ প্রদানসহ মানি লন্ডারিং ও এন্ট্রি টেরিজম বিষয়ে সর্তক করণ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে রাজধানী রোমে।
ন্যাশনাল এক্সচেঞ্জ কোম্পানীর চেয়ারম্যান হাজী মোঃ ইদ্রিস ফরাজী দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে প্রবাসীদের অবদান রাখতে আহ্বান জানিয়ে বলেন, বৈধ পথে কষ্টার্জিত অর্থ প্রেরন করে প্রবাসীরা যেমন উপকৃত হবেন, তেমনি পারেন দেশের উন্নয়নে অংশীদার হতে ।
তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক ন্যাশনাল এক্সচেঞ্জ কোম্পানি টানা তৃতীয়বারের মত সেরা মানিট্রান্সফার কোম্পানী হওয়ার এ গৌরব সকল প্রবাসীদের।
এসময় প্রতিষ্ঠানের ভাইস-চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর ফরাজী, পরিচালক বাবুল মোড়লসহ বিদেশী কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
১৫০জন এজেন্টকে সর্তকরন সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন, এতে প্রবাসীদর কষ্টার্জিত অর্থ মানি লন্ডারিং এর মাধ্যমে যেন কোন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে ব্যবহার না হয়, সেজন্য প্রশিক্ষন দেয়া হয়।
এসময় রোম এবং আশেপাশের বিভিন্ন শহর থেকে আসা এজেন্টদের প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সাটিফিকেট এবং ক্রেস্ট প্রদান করেন চেয়ারম্যান হাজী মোঃ ইদ্রিস ফরাজীসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।