মিনহাজ হোসেন ইতালী প্রতিনিধিঃ বাংলা কৃষ্টি ও সংস্কৃতি কে লালন, পালন ও ধারণ করার প্রত্যয়ে ই ইতালিতে মার্কোনী যুব সমাজ একটি শীতকালীন পিঠা উৎসবের আয়োজন করে। রাজধানী রোমের অলিম্পিক ক্লাব মাঠে প্রায় অর্ধ শতাধিক প্রবাসী বাংলাদেশি নারীরা গৌরবময় সেই পিঠা পুলি বানিয়ে নিয়ে আসেন।
বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত চলে এই পিঠা উৎসব টি। বিজয় করের পরিচালনায় এই সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা বলেন” হাজার বছরের পুরনো বাংলাদেশীদের ঐতিহ্য ও কৃষ্টি। যা গৌরবের। কিন্তু প্রবাসে অবস্থান গত কারণেই এখানে সেই সংস্কৃতির বিকাশ টা নষ্ট না হয়ে যায় সে কারণেই এই আয়োজন। তারা আরো বলেন ” বাঙালিদের যে কৃষ্টি ও সংস্কৃতি রয়েছে তা পালন ও ধারনের মধ্যে দিয়ে সেই দেশের সঙ্গে দূরত্ব অনেক অংশেই কমে যায়। আর এই ধরনের আয়োজনের মধ্যে দিয়ে আমাদের ঐতিহ্য গুলোও বেঁচে থাকে। পাশাপাশি আগামী প্রজন্ম গৌরবময় এই ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি কে শিখতে ও জানতে পারে। প্রবাসের এই প্রজন্মদের মাঝে যদি নিজ দেশের সংস্কৃতি ও কৃষ্টির ইতিহাস গুলো জানানো যায় তাহলে তাদের মধ্যে দেশের প্রতি একটি আত্মিক বন্ধনের সৃষ্টি হবে।”
এই সময় উপস্থিত ছিলেন রোমের রাজনৈতিক, সামাজিক, আঞ্চলিক, ব্যবসায়িক এবং জালালাবাদ এস্যোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ। এই সময় প্রতিটি নারী দের জন্যে বিশেষ পুরস্কার প্রদান করা হয়।
উল্লেখ্য “মার্কোনী যুব সমাজ” একঝাক তরুণদের নিয়ে চলছে। এই তরুণেরা তাদের মেধা ও মনন দিয়ে ইতালির রোমের কমিউনিটির জন্য কল্যাণকর কাজ গুলো করে যাচ্ছে। তাদের একটিই চাওয়া” আমরা কোন পদ ও পদবী ব্যবহার করবোনা। কোন বৈষম্য থাকবেনা সবাই কাজ করবে যে যার সাধ্য মতোন। আর এভাবেই মার্কোনী যুব সমাজ বছরের পর বছর কাজ করে যাচ্ছে। তাদের সততা ও কর্মপরায়তার কারণে এই সংগঠনের জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে অনেক বেশি।
ভবিষ্যতে আরো বেশি সমাজ উন্নয়ন মূলক কাজ করে যাবার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন সেই সঙ্গে সকলের সহযোগিতা ও কামনা করেন।