ইতালী

।।আবারও বাংলাদেশ দূতাবাসের বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ।।

রির্পোট ঃ আমানুর রহমান।।
জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইজ বুকে
“Fakhrul Islam Liton” নামে এ আইডি থেকে সরাসরি পোষ্ট করে অভিযোগ করেছেন” দূতাবাসের সার্টিফিকেট কাউন্টারে বসে থাকা এ ব্যাক্তির অাধিপত্ত্যের কথা। গত ২৩ জুন রবিবার তার ফেইজ বুকে ” দলীয় প্রভাব মুক্ত দূতাবাস চাই ” ষ্টাটাচ্ এ বলেছেন দূতাবাসে সরকারী দলের ২/৩ জন দলীয় প্রভাব বিস্তার করছে, বলে অভিযোগ করেন এবং অনেকের নাম প্রকাশ করছেন। অদ্যদিন “Fakhrul Islam Liton” পুনরায় নিচের ছবিটি পোষ্ট করেন। এ বিষয়ে লিটনের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন ছবি ব্যাক্তিটি দূতাবাসের কাউন্টারে বসে সাধারনের সাথে রূঢ় আচারন করেন, যাহার ভুক্তভোগী জনাব লিটন নিজেই। তিনি আরও জানান এই সেই “রানা ইকবাল”- কোন কারন ছাড়াই সেদিন দূতাবাস ভবনের ভিতর থেকে সিকিউরিটি দিয়ে দূজনকে বাইরে বের করে দিয়েছিলেন। লিটনের ভাষ্যমতে রানা ইকবাল ইতালী আওয়ামীলিগের প্রভাবশালী এক নেতার সহোদর। আরও জানান রানা ছাড়াও ৩/৪ জন কর্মকর্তা প্রায় ৫/৬ বছর যাবত দূতাবাসের কর্মে নিয়োজিত রয়েছে। এসকল কর্মচারী গন কখন, কিভাবে দূতাবাসে নিয়োগ পেলেন,সেটাই এখন জন মনে প্রশ্নবিদ্ধ?। সরকারী নিয়মানুসারে জাতীয় / স্থানীয় পত্র পত্রিকায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তী প্রকাশের মধ্যে দিয়ে সরকারী কর্মকর্তা বা কর্মচারী নিয়োগ প্রক্রিয়া হয়ে থাকে। কিন্তু ইতালীর দুতাবাস থেকে বিগত ৫/৬ বছরের মদ্ধ্যে এমন কোন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি কোন পত্র-পত্রিকা বা দূতাবাসের ওয়েব সাইডে দেখা যায় নি।তাহলে এ সকল কর্মকর্তা গন কোন অদৃশ্য শক্তির বলে নিয়োগ পেলেন এবং দূতাবাসে দাম্ভিকতার সাথে প্রভাব বিস্তার করছেন।জনমুখে এমনটাও শোনা গেছে প্রভাবশালী একটি মহলের সুপারিশ ও অর্থনৈতিক লেনদেনের মধ্য দিয়ে এ সকল অযোগ্য কর্মচারীদের অবৈধ নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে।ধারনা করা হচ্ছে এ চক্রটি দূতাবাসে সকল দালালী কর্মকান্ডে জড়িত।তবে এদের পিছনে রয়েছে দলীয় বড় কোন নেতার ভুমিকা।
যার দরুন এ সকল অসাধু কর্মকর্তারা নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে সাধারনের সাথে রূঢ় আচারন করে আসছে ও দূতাবাস ভবনের ভিতর গড়ে তুলেছেন নিজ আস্তানা। ভুক্তভোগী দের দাবি এ সকল অবৈধভাবে নিয়োগ প্রাপ্তদের জরুরি ভাবে অপসারণ করে, দূর্নীতি মুক্ত,সচ্ছ, সেবার বাংলাদেশ দূতাবাস। এ নিয়ে ধূমকেতু সামাজিক সংগটনের প্রতিষ্ঠাতা নুরে আলম সিদ্দীকী বাচ্চু যোগাযোগ মাধ্যমে আশুসমস্যার সমাধানে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।।