সারা দেশ

পরপুরুষের হাত ধরে পালিয়েছে গৃহবধূ ফেনী সোনাগাজীর নাসরিন আক্তার অভি।

ফেনী সদর উপজেলার লেমুয়া ইউনিয়নের কসবা গ্রামের জমাদ্দার বাড়ীর নুর ইসলামের তৃতীয় ছেলে প্রবাসী সাইফুল ইসলামের স্ত্রী নাসরিন আক্তার অভি শিশু সন্তান ও ৮ ভরি স্বর্নলংকার, নগদ ৩ লক্ষ টাকা নিয়ে উধাও হয়ে যায়। এছাড়াও সাইফুলের প্রবাসে থাকার সুযোগে ফেনী দাউদপুরের ভাড়া বাসা থেকে ফ্রিজ, টিভি, খাট,৪টি মোবাইল, স্টিলের আলমারি সহ যাবতীয় আসবাব পত্র সরিয়ে নিয়ে যায়। সুত্রে জানাযায়, গত ১৩-১২-২০১৩ সালে সোনাগাজীর মতিগঞ্জ ইউনিয়নের স্বরাজপুর গ্রামের মাজন বাড়ীর শাহজাহানের দ্বিতীয় মেয়ে নাসরিন আক্তার অভির সাথে সাইফুলের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে সাইফুল সংসারের সুখের জন্য প্রবাসে থাকে। সাইফুল তার শুশুর শাহজাহানের কথা বিশ্বাস করে ১০ ডিসিম জমি কেনার জন্য শশুরে কাছে টাকা পাঠায়।কিন্তুু এখন পর্যন্ত কোন জমিা কিনে দেয়নি। সাইফুলের অনুপস্থিতিতে নাসরীন আক্তার একই উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের সফরপুর গ্রামের জসিম উদ্দিনের ছেলে সালাউদ্দীনের সাথে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। সর্বশেষ গত ১ জুন ২৫ রমজান ২০১৯ প্রেমিক সালাউদ্দীনের হাত ধরে ফেনী শহরের দাউদপুরের ভাড়াবাসা থেকে পালিয়ে যায়। নাসরিনের স্বামী সাইফুল ইসলাম নাসরিনের সাথে যোগাযোগ করার জন্য যোগাযোগ করলে নাসরীন উল্টো মামলা করার ভয় দেখায়।ভুক্তভোগী এই প্রতারণাকারী মহিলার বিচার চেয়ে প্রশাসনের সহযোগীতা চেয়েছেন।