ইতালী

জাতীয় শোক দিবস ও ২১আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ পেনসিলভেনিয়ায় দোয়া ও আলোচনা সভা।

মেহেনাস তাব্বাসুম শেলি রোম প্রতিনিধিঃ
জাতীয় শোক দিবস-২০১৯ এবং ২১ আগস্ট ভয়াল গ্রেনেড হামলা উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ পেনসিলভেনিয়া শাখা।

গত ২৮ আগষ্ট বুধবার স্হানীয় সময় সন্ধ্যা ৮ঘটিকায় নিজস্ব কার্যালয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর জীবন ও কর্মের উপর আলোচনা অনুষ্ঠান ও ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট তারিখে শাহাদাৎবরণকারীগণের ও ২১আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদেল রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবার সহ ২১আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহত সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ পেনসিলভেনিয়ার সংগ্রমী সভাপতি আলিম উদ্দিন এর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাহুল দাস ও রোমিও সরকার এর যৌথ সঞ্চালনায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পেনসিলভেনিয়া আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মিজান, সম্মানিত উপদেষ্টা আব্দুল হাই মিয়া, অন্যতম উপদেষ্টা সাবেক পুলিশ অফিসার বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রনব দাস, বীর মুক্তিযোদ্ধা মজুমদার, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম পান্না, বীর মুক্তিযোদ্ধা এড.মতিউর, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক শামিম, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক, সহ-সভাপতি জাহিদুল ইসলাম, সহ-সভাপতি পিন্টু, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সাকিব সহ প্রমুখ।

অতিথিরা তাদের বক্তব্যেতে বলেন, মাত্র ৫৫ বছরের জীবনে বঙ্গবন্ধু এদেশের মাটি ও মানুষকে গভীর ভালবাসার বন্ধনে বেঁধেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর বিরোধিতাকারীরাও বিশ্বাস করেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না।

তারা আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু জীবন দিয়ে আমাদের অমৃত দিয়ে গেছেন। তাঁর চেতনা ও আদর্শকে ধারণ করতে হবে। বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ ও স্বাধীনতা এ তিনটি শব্দ ওতপ্রোতভাবে জড়িত। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে আওয়ামী লীগের সকল জাতীয় কার্যক্রম গুলো করার জন্য দেশে ও প্রবাসের সকল মুজিব আদর্শের সৈনিকদের আহবান জানানো হয়েছে।

এছাড়াও বক্তারা ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্বরণ করে তারা বলেন বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাকে কেউ কখনো ধ্বংশ করতে পারেনি এবং পারবেও না। এজন্য আমাদের সকলকে এক সাথে দেশের উন্নয়নে কাজ করে যেতে হবে।

পরিশেষে ১৫ই আগস্ট ও ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহত সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন স্থানীয় মসজিদের ইমাম।